আন্দামান নিকোবার আইল্যান্ড

গত মাসে অবশেষে আল্লাহ্‌র অশেষ রহমতে বউ বাচ্চাসহ ঘুরে আসলাম বহুল প্রতীক্ষিত আন্দামান নিকোবার আইল্যান্ড… … আমি সংক্ষেপে আমার ট্যুর প্ল্যান আর কিছু প্রয়োজনীয় ইনফো দিচ্ছি যদি কারও উপকারে আসে 🙂
২৭ শে অক্টোবর – ঢাকা টু কলকাতা বাই রিজেন্ট এয়ার
২৮ শে অক্টোবর- কলকাতা টু পোর্ট ব্লেয়ার (আন্দামানের রাজধানী) বাই ইন্ডিগো
২৯শে অক্টোবর- পোর্ট ব্লেয়ার টু নেইল আইল্যান্ড বাই শিপ (শিপের নাম খুব মজার- চুল দাড়ি! )
৩০ শে অক্টোবর- নেইল টু হ্যাভলক বাই চুলদাড়ি
৩১শে অক্টোবর- হ্যাভলক টু পোর্ট ব্লেয়ার বাই গ্রিন ওশান শিপ
২রা অক্টোবর- পোর্ট ব্লেয়ার টু কলকাতা বাই ইন্ডিগো
৩রা অক্টোবর- কলকাতা টু ঢাকা বাই রিজেন্ট এয়ার
আমি সব প্লেনের টিকেট এবং পোর্ট ব্লেয়ার, নেইল আইল্যান্ডের রিসোর্ট ঢাকা থেকে বুকিং দিয়ে গিয়েছিলাম… রিজেন্ট আর ইন্ডিগোর টিকেট ওদের ওয়েবসাইট থেকে দিলেই সবচেয়ে কম পড়ে… কলকাতা টু পোর্ট ব্লেয়ার রিটার্ন টিকেট আমি, আমার স্ত্রী আর আমার চার বছরের ছেলের পড়েছিল ৫৩৪ ডলার… আর পোর্ট ব্লেয়ার এ বুকিং ডট কমে আর নেইলে আগোডা থেকে, এক্ষেত্রে মজার বিষয় বুকিং ডট কমে টাকা না কাটলেও আগোডায় সাথে সাথেই কার্ডে চার্জ করে ফেলে এবং আমাদের ২৯ তারিখ নেইলের টিকেট পাওয়া অনিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল আগে থেকে না করায়, অবশেষে ভোর চারটায় আমাদের পোর্ট ব্লেয়ারের আন্দামান ওশান ব্রিজ রিসোর্টের মালিক আরশাদ ভাই নিজের গাড়িতে করে নিয়ে আসেন স্ট্যান্ডিং টিকেটের জন্য, লাকিলি আমরা পেয়ে যাই… আন্দামান ওশান ব্রিজ রিসোর্ট নিয়ে কিছু না বললেই নয়,we got superb hospitality from d owner of our resort Andaman Ocean Breeze Arshad Jabbar Bhai, শুধু অসাধারণ ব্যালকনি ভিউ বলেই নয় বরং সেই আরশাদ ভাই এর কারণেই ট্যুর খুব বেশী এঞ্জয়েবল হয়েছিল আমাদের। উনি খুব রিজনেবল প্রাইসে নেইল, হ্যাভলক ও পোর্ট ব্লেয়ারে আমাদের জন্য সারাদিনের গাড়ি ও গাইড ঠিক করে দিয়েছিলেন…
& So Andaman Ocean Breeze Resort is highly recommended for TOB Members..owners r also muslims & they treated us as family guest with mouth watering complementary homemade dinner@last night
আন্দামান সেলুলার জেলের করুণ কাহিনী নিয়ে বিখ্যাত লাইট শো আমাকে এতটাই মুগ্ধ করেছে হ্যাভলক থেকে ফিরেই আমি Anthropological Museum, Port Blair থেকে সেলুলার জেলের ইতিহাস নিয়ে একটি বই কিনেছি লাইফের প্রথম হিস্টোরি বেসড ব্লগ লিখব বলে 😛
Best Part of PB was obviously Lime Stone Cave adventure started at midnight 2.30am… yes we started at midnight towards Baratang & on d way we crossed Tribal villages; river of crocodiles & we had to walk for 3 km in a forest to reach d final destination and finally we were so happy to v all d pains to experience such wonderful wonder of Nature…
নেইল আইল্যান্ডে আমরা ছিলাম এমারাল্ড ইকো রিসোর্টে (৩৮ ডলার পার নাইট) আর হ্যাভলকে গ্রিন ইম্পেরিয়াল এ (৩৫০০ রুপি পার নাইট) আর আন্দামান ওশান ব্রিজ এ তিন রাত ৬৩০০ রুপি…
নেইল আর হ্যাভলক নিয়ে বেশী কিছু বলব না শুধু মুগ্ধ হয়ে বিধাতার ক্রিয়েটিভিটি উপভোগ করছিলাম… আর কারবিন্স কোভ বিচে অদ্ভুত শুন্দর পূর্ণিমা দেখে আমি হুমায়ূন আহমেদকে মিস করছিলাম! কি অদ্ভুত!!
আন্দামানে প্রচুর বাঙালি, আরও একটি বিষয় খুব ভাল লেগেছে প্রায় সবখানেই আমাদের প্রাণের লিচি ড্রিংক পাওয়া যায় 🙂
কিছু সাজেশন আন্দামানে আসলে খুব বেশী করে ডাব খাবেন পুরাই বেহেস্তি ডাব, অরিজিনাল পার্ল কিনবেন বিচ থেকে, যাদের হালাল হারাম খাবার নিয়ে খুঁতখুঁত আছে তারা শুধু সামুদ্রিক মাছ খাবেন বেশী করে আর পোর্ট ব্লেয়ারে রোলা কোস্টা রেস্টুরেন্টের পেস্তা বাদাম শরবত খেতে ভুলবেন না 🙂
সময় স্বল্পতার কারণে রস-স্মিথ আইল্যান্ডে যেতে পারিনি সেই আফসোস রয়ে গেল আর হ্যাঁ আন্দামান হানিমুনের জন্য অনেক ভাল একটি অপশন 🙂
সবাইকে পোর্ট ব্লেয়ারে এসে RAP (Restricted Area Permit) নিতে হবে এবং এই কাগজ হারানো যাবেনা, ব্যাক করার সময় ফেরত দিতে হবে এয়ারপোর্টেই
সবাইকে সালাম, ভাল থাকবেন :

Post Copied from:সিহাব তানিম‎>Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com