এই শীতে অল্প খরচেই ঘুরে আসুন ভুস্বর্গ কশ্মির ও যেভাবে যাবেন

বলা হয় আসমান এবং জমিনের মাঝে যদি কোন বেহেশত থাকে , তবে সেটা কাশ্মীর। অপুর্ব সুন্দর এই জায়গাটির প্রতিটি কনা মনে হয় আল্লাহ নিজের হাতে যত্ন নিয়ে সৃষ্টি করেছেন।কাশ্মীর সম্পর্কে প্রথম শুনি সম্ভবত ফেলুদার বই এ। গল্পের নাম ছিল ভু-স্বর্গ ভয়ংকর। লেকের উপর বড় বড় বজরা, সমৃদ্ধ সংস্কৃতি, অপরুপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। কাশ্মির নিয়ে যত শুনেছি, মুগ্ধ হয়েছি।তখন ই ঠিক করি, নিজের সামর্থে দেশের বাইরে প্রথম ট্রিপ টা কাশ্মির ই হোক।

কাশ্মীর দেখার মুলত ৩ টা সময় থাকে। আমরা শীতকাল টাকেই বেছে নেই। ছুটি মেলানো ছাড়াও, বরফ দেখার শখ ছিল অনেক।
এবার আসি ডিটেইলস এবং খরচে। আগেই বলে নেই আমরা নিজেরাই সব বের করে , ঠিকঠাক যাচাই বাছাই করে যাই। কোন ট্র্যভেল এজেন্সীর সাহায্য নেই নি। তারা মাত্রাতিরিক্ত লাভ করে। তাই বলব, সাহস করে নিজেরাই সব এরেঞ্জ করে যেতে।

কাশ্মীর কয়েকভাবে যাওয়া যায়।
ঢাকা থেকে সরাসরি শ্রীনগরের কানেক্টিং ফ্লাইট আছে।
প্লেনে গেলে মাস দেড়েক আগে টিকেট কাটলে অনেক কমে পাওয়া যায়। আবার কোলকাতা / দিল্লী

আমি সবচেয়ে কম খরচের টাই বলছি।
আমাদের প্ল্যান টা ছিল,
ঢাকা – কোলকাতা – শ্রীনগর – জম্মু – কোলকাতা – ঢাকা।

১ম দিন;

রাত ৮ টা।
ঢাকা – কোলকাতা। বাসে। খরচ ১১০০ টাকা সর্বনিম্ন। এসি বাস। সৌদিয়া।
= ১১০০ টাকা

২য় দিনঃ

পরদিন দুপুর ১২-১ টার মধ্যে কোলকাতার নিউমার্কেট নামিয়ে দেবে বাস। এর মধ্যে বর্ডার এ ১০০ টাকা ঘুষ দিলেই সব স্মুথলি পেরিয়ে যাবেন। কোলকাতায় ৮০০/১০০০ এ বাথ্রুম, ওয়াইফাই সহ হোটেল পেয়ে যাবেন। আমি ৬ জনের খরচ দিচ্ছি এখানে। তাহলে পার পারসন ২০০ এর মতই পরে।
আর খাওয়া খরচ পার ডে ৪৫০ রুপি ধরা হবে প্রতিদিন। র হিসাব। যদিও এত লাগে না।
ব্যাগ ট্যাগ হোটেলে রেখে ফ্রেশ হয়ে বাকি সময় কোলকাতা দ্ঘুরলেন।

তাহলে এই দিনে মোট খরচ ঃ খাওয়া ৪৫০ + হোটেল ২০০ + আর কোলকাতা ঘুরার জন্য ট্রান্সপোর্ট ৩৫০ রুপি। মোট ১০০০ রুপি।

ঘুরার জন্য বাস, ট্রাম, ট্যাক্সি, ওলা ক্যাব, উবার এক্সএল অনেক অপশন রয়েছে।

এবার আপনাকে শ্রীনগর পৌছুতে হবে।

প্লেনে গেলে খরচ হবে সাড়ে ৫ থেকে ৬ হাজারের মত। যত আগে টিকিট কাটবেন তত কম পরবে।
আর ট্রেনে গেলে ৭০০/১৯৮০/৩৩০০ বিভিন্ন দামের আছে।
১৯৮০ রুপিতে এসি ৩ টায়ার এর টিকিট পাওয়া যায়। বেশ ভাল।
এখানে ট্রেনের হিসেব দিচ্ছি।

৩য় দিনঃ
রাত ১১.৩০ । ট্রেন। হিমগিরি এক্সপ্রেস।
কোল্কাতা – জম্মু = ১৯৮০ রুপি। সময় ৪০ ঘন্টার মত।
খাবার সারাদিন, ৪৫০ রুপি।
মোট = ২৪৩০ রুপি।

৪র্থ দিনঃ

ট্রেনেই কাটবে সারাদিন।
খাবার ৪৫০ রুপি।

৫ম দিনঃ

খাবার ৪৫০ রুপি।
ট্রেন পৌছুবে দুপুর এর দিকে বিকেলে।
জম্মু তে কিছুক্ষন রেস্ট নিয়ে এবার শ্রীনগরের দিকে রওনা করতে হবে। জম্মু -শ্রীনগর এর রাস্তা টা খুবই সুন্দর আবার ভয়ংকর ও। সময় লাগে ১০ ঘন্টা,
বাসে গেলে ভাড়া ৬০০ রুপি।
ট্যাক্সি তে ৮০০।
রিজার্ভ যদি ৮ জন হয় তবে ৯০০ রুপি পরে।
বাসগুলো ভাল।
তাহলে এদিন মোট খরচ ঃ ৪৫০ + ৬৫০ = ১১০০ রুপি।

৬ষ্ঠ দিন ঃ

কাশ্মির এর রাজধানী শ্রীনগর এর আপনার প্রথম দিন।
শ্রীনগরে আপনারা হাউসবোট কিংবা হোটেল এ থাকতে পারেন। পার পার্সন ২০০ থেকেও হোটেল পাবেন।
আমরা থেকেছিলাম Samad Khankashi ভাই এর হাউসবোট Houseboat Bluebird এ। এখান থেকেই ঠিক করে গিয়েছিলাম। তার সাথে আগে থেকেই বন্ধুত্ব থাকার কারনে অনেক কিছুই সহজ হয়ে গিয়েছিল। তিনি আমাদের এয়ারপোর্ট থেকে রিসিভ কড়ে নিয়ে যান।
হাউসবোট এর ছবি কমেন্টে পাবেন। হাউসবোটে থাকতে পার ডে ৫০০ এর মত পরবে ১ জনের। সেটা আপনাদের জন্য কম – বেশি হতে পারে। সিজন ভেদে।

কাশ্মীর পুরোটাই দরদামের খেলা। যত বারগেইন করতে পারবেন তত জিতবেন।

প্রথম দিন হাল্কা রেস্ট নিয়ে শ্রীনগর শহর ঘুরে দেখতে পারেন। বেশ কিছু বাগান, ফোর্ট আর টিউলিপ গার্ডেন আছে। একদিনেই হয়ে যাবে। ডে ট্রিপ গাড়ি ভাড়া ২০০০ রুপি। ৮ সিটার।

তাহলে এদিন খরচ ঃ বোট ৫০০ + খাওয়া ৪০০ + গাড়ি খরচ ৩০০ = মোট ১২০০ রুপি।

এখন আসুন কাশ্মির এর কোথায় ঘুরবেন। সবাই সাধারনত সোনমার্গ, গুলমার্গ, পেহেলগাম ঘুরতে যায়। যেকোন দিন যেটায় খুশি যেতে পারেন। ১ দিনে ১ টাই দেখা যায়।

৭ম দিন ঃ

সোনমার্গ।

গাড়ি ভাড়া সেই ২০০০ রুপি।
খাবার ৪৫০।
বোট ৫০০।
সোনমার্গ ছোট। ঘোড়া নিতেও পারেন। না নিলেও চলে। আমরা নেই নি। যেটাই করেন তুখোড় দামাদামি কয়রা লাগবে। ঘোড়া চড়লে ৭/৮০০ রুপি লাগবে, সোনমার্গে প্রয়োজন নেই।

মোট খরচ ঃ বোট ৫০০ + খাবার ৪৫০ + গাড়ি ৩০০ = মোট ১২৫০ রুপি।

বিঃদ্রঃ প্রত্যেকটা জায়গায় এক্সট্রা বিনোদন অনেক কিছুই করা
যায় চাইলে। সেগুলো পার্সোনাল খরচ। তাই উল্লেখ করব না।

৮ম দিন ঃ গুলমার্গ

গাড়ি ভাড়া সেই ২০০০ রুপি।
খাবার ৪৫০।
বোট ৫০০।
গুলমার্গে ক্যাবল কারে চরা মাস্ট। সর্বোচ্চ দুরত্ব উঠলে ১৬০০ রুপি। অর্ধেক উঠলে ৭০০ রুপি।
এছাড়া স্কি, স্নোবাইক আরো অনেক কিছু আছে, টাকা থাকলে চড়বেন।

এদিন খরচ” বোট ৫০০ + খাবার ৪৫০ + গাড়ি ৩০০ + ক্যাবল কার ৭০০ রুপি = মোট ১৯৫০ রুপি।

৯ম দিন ঃ

পেহেলগাম
গাড়ি ভাড়া সেই ২০০০ রুপি।
খাবার ৪৫০।
বোট ৫০০।
পেহেলগাম ঘোড়ায় চড়ে দেখতে হয় যা ৫০০ রুপিতে ঠিক করতে পারবেন দরদামে দক্ষতা থাকলে। চায় ২০০০ রুপি :p আমরা উঠেছিলাম ৩৫০ রুপি তে।

এদিন খরচ” বোট ৫০০ + খাবার ৪৫০ + গাড়ি ৩০০ + ঘোড়া ৫০০ = মোট ১৭৫০ রুপি।

এরই মধ্য দিয়ে আপনার কাশ্মীর ঘোরা হয়ে গেল।

১০ম দিন ঃ

সকাল সকালে শ্রীনগর থেকে জম্মুর উদ্দ্যেশে রওনা দেবেন।
ভাড়া সেই ৬০০ রুপি বাস। ৯০০ রুপি ক্যাব।
জম্মু তে একটু আগে পৌছুলে ট্যাক্সিতে কড়ে আশপাশ ঘুরতে পারেন।

এদিন খরচ ঃ ৬০০ রুপি + খাবার ৪৫০ + জম্মুতে ঘোরাঘুড়ি ২৫০ রুপি = মোট ১৩০০ রুপি।

এবার খুশি মনে আবার ট্রেনে উঠে পরুন।
জম্মু – কোলকাতা । ৪০ ঘন্টা ।

১১ দিন ঃ

কোল্কাতা – জম্মু ট্রেন। ১৯৮০ রুপি। এসি।
খাবার ৪৫০
এদিন খরচ ঃ ১৯৮০ + ৪৫০ = ২৪৩০ রুপি

১২ তম দিন ঃ

কোলকাতা পৌছুতে বিকেল হবে। আবার একটি হোটেল নিয়ে নিন, শহর ঘুরুন। বাস আবার সেই সকালে।

এদিন খরচ ঃ খাবার ৪৫০ + হোটেল ৩০০ + শহর ঘোরা ৩০০ = ১১০০ রুপি।

১৩ তম দিনঃ

কোলকাতা – ঢাকা ১১০০ রুপি।
বর্ডার মানি ১০০
খাবার ৪৫০

মোট = ১৭০০ রুপি।

শেষ 😀

তাহলে আনুমানিক খরচ হল ঃ ১৮৭৫০ রুপি। ধরুন ২০০০০ টাকাই গেল মোটমাট 😀

খরচ কমাতে খাওয়া কমাতে পারেন। ঘোড়ায় না উঠে হাটতে পারেন। হাউদবোটে না থেকে ২০০ টাকার হোটেলে থাকতে পারেন। খাবারে অনেক খরচ বাচানো যায়। ৩৫০ রুপির ট্রেন টিকেট করতে পারেন। আরো কমে আসবে। তবে এই খরচে লাক্সারি ট্রিপ ই দেওয়া যায়,

এখানে সংক্ষেপে আমি বর্ননার চেষ্টা করেছি। আরো অনেক ডিটেইলস আছে কাশ্মীর ঘোরার এবং যাওয়ার। সেগুলো কমেন্টে বা ইনবক্সে আমার কাছ থেকে জানতে পারেন।

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com