ড্রিম হলিডে পার্ক রিভিউ

অনেকে একদিনের মধ্যে ঘুড়ে আসার জন্য প্লেস খুজেন। আমিও খুজছিলাম,তবে এই পার্ক নিয়ে কোন ডিটেইল পোস্ট পাই নি।

পার্কের ভিতর ঢুকার পর বেশ ভালো লাগে। পরিবেশ টা সুন্দর, গোছান ছিমছাম এবং পরিষ্কার। ছবি তোলার ভালো অনেকগুলো স্পট আছে। বসার জন্য ছাউনি ও আছে, একটু পর পর ই চিপস, জুস, আইসক্রিম এর দোকান আছে। মাদার’স রুম ও বেশ কয়েকটা টয়লেট সুবিধা আছে। বেশ কয়েকটা লেইক, বোটিং ফ্যাসিলিটিস আছে যেগুলো বেশ রিফ্রেশিং। ফ্যামিলি নিয়ে সুন্দর সময় কাটানর জন্য পারফেক্ট।

এখন আসি রাইডস এর কথায়।
আমি ডিসএপয়নটেড। ওরা প্যাকেজ এ ২৫ টা রাইড ইনক্লুড রাখে।কিন্তু প্রতিটা রাইড ই শুরু হওয়ার ১ মিনিট এর মধ্যে শেষ হয়ে যায়। কিছু বুঝার আগেই শেষ। খুব খারাপ লাগে তখন। ২/১ টা বাদে সবগুলর একি অবস্থা। যেমনঃ ভুতের বাড়ি, রোলার কোস্টার,ট্রেইন…
ওয়াটার পার্কঃ
ফ্যান্টাসি কিংডম আর নন্দন পার্কের চেয়ে তুলনামুলক ছোট, রাইডস ও কম। রাইড বা ওয়াটার স্লিপার গুলো তে কোন স্টাফ ছিল না। D.J. এর মিক্সিং টাও বেশ দুর্বল লেগেছে। ওয়েভ পুলের ওয়েভ গুলো মন্দ ছিল না যদিও। চেইঞ্জিং ফ্যাসিলিটি আর ওয়াশিং এরিয়া টাও ভাল লাগে নি। সিকিউরিটি আরেকটু বেশি হলে ভালো লাগতো।তবে লকার ফ্যাসিলিটি টা ভালো ছিল, স্পেস অনেক বেশি থাকে লকারে। আর পুলের পানি টা ময়লা ছিল না।
খাবারঃ
আগেই বলেছি, স্ন্যাক্স ও খেলনা সহ বিভিন্ন প্রোয়জনীয় জিনিসের দোকান আছে বেশ কয়েকটা। দাম স্বাভাবিকভাবে একটু বেশি, তবে লাঞ্চ করার রেস্টুরেন্ট এ সেট মেনু গুলো আমার কাছে রিসনেবল ও টেস্টি লেগেছে।

ওভার অল পার্ক টা বাচ্চা দের জন্য খুব সুইটেবল মনে হয়েছে কারন হল ৩-৪ টা প্লে-জোন আছে দোলনা, স্লিপার সহ। বাচ্চা দের বিভিন্ন মজার রাইডস ও আছে। ইন্টারেস্টিং কিছু স্ট্যাচু আছে দেখে মজা পাবে। দৌড়াদৌড়ি করার অনেক জায়গা আছে।

প্রাইস সম্পর্কে একটু ধারনা দেইঃ
১.প্রবেশ মুল্য বড়=৩০০টাকা
২.প্রবেশ মুল্য ছোট=২০০টাকা(৩-৮ বছর)
৩.ওয়াটার পার্ক=৩০০টাকা(১২টা থেকে ৪টা)
*লকার ফি=৫০-৩০০টাকা
*গাড়ি পার্কিং=৫০-১০০টাকা
*সপ্তাহে ৭ দিন ই খোলা
*বাহিরের খাবার নিষিদ্ধ
*৩০টি রাইড রয়েছে
*রাইডের মুল্য ৫০-১০০ টাকা
***আমাদের প্যাকেজ সমূহ-
২ জনের প্যাকেজ=২৫০০টাকা
৪ জনের প্যাকেজ=৪৫০০টাকা
(খাবার, 9Dমুভি, ফ্যামিলি বোট প্যাকেজে নেই)

কিভাবে গেলামঃ
কুড়িল থেকে বি আর টি সি এর এসি বাস একদম পার্কের গেইট এ নামিয়ে দিবে ১১০ টাকা টিকেট। ১ ঘন্টা লেগেছিল।
আসার সময় রিকশা তে করে বি আর টি সি এসি বাস কাউন্টার, বললেই নিয়ে যাবে। কুরিলে নেমে উবার কল করে বাসায় চলে আসলাম।

বেড়াতে গিয়ে পরিবেশটা নোংড়া না করার চেষ্টা করব সবাই। নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা ফেলব। কারন নোংড়া পরিবেশে ঘুরতে যেতে নিশ্চয়ই আমাদের কারোরই ভালো লাগবে না!!

Source: Tamanna Hossain<Travelers Of Bangladesh (TOB)

Share:

Leave a Comment

Shares