দেশের সবচেয়ে বড় ফুলের রাজ্য যশোরের গদখালি

ফুল প্রতিটি মানুষের কাছেই পছন্দের এক বস্তু। ফুলের রং এবং সুগন্ধ মুগ্ধ করে তোলে সবাইকে। এজন্যই উপহারের অন্যতম প্রধান বস্তু হল ফুল। একটি ফুল যেখানে সবার মন জয় করে নেয় সেখানে যশোর জেলায় রয়েছে অসাধারণ এক ফুলের রাজ্য। যশোরের গদখালী এলাকায় এই ফুলের রাজ্য অবস্থিত।

যশোর শহর থেকে ২৫-৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে দুটি থানা ঝিকরগাছা ও শার্শা। যেখানে প্রায় ৪ হাজার বিঘা জমিতে ফুল চাষ করে স্থানীয় কৃষকরা। এসব ক্ষেত থেকে প্রতিবছর প্রায় কয়েক কোটি টাকা মূল্যের ফুল উৎপন্ন হয়। প্রতি বছর দেশের ফুলের বড় একটি চাহিদা পূরণ করে থাকে এই অঞ্চলের উৎপাদিত ফুল। পুরো এলাকা জুড়ে পথের দু’পাশে লাল, নীল, হলুদ, বেগুনি আর সাদা রঙের এক বিস্তীর্ণ চাঁদর যেন বিছিয়ে রেখেছে এই এলাকার চাষিরা। বেশির ভাগ জমিতেই ফুল চাষ করে এখানকার চাষিরা।

ফুলের রাজ্য যশোরের গদখালি

বাড়ির চারপাশে সৌখিন ফুলের বাগান নয় এগুলো। মাঠের পর মাঠ জুড়ে ফুলের বিশাল এক একটি ক্ষেত। ফুলই এখানে প্রধান ফসল। বাতাসে ফুলের মিষ্টি সৌরভ, মৌমাছির গুঞ্জন, প্রজাপতির ডানার জৌলুশ আর রঙের অফুরান সৌরভের সমাহার। এক কথায় মাতিয়ে তোলার মতো পরিবেশ। এই দৃশ্য দেখতে হলে আপনাকে যশোর-বেনাপোল রোড ছেড়ে ডানে, ফুলের গ্রাম গদখালীতে নেমে যেতে হবে। গদখালী বাজারে নেমে ভ্যানে করে পানিসারা যেতে যেতে এমন দৃশ্য চোখে পড়বে সবার। ইচ্ছে হলেই যেকোনো বাগানে নেমে যেতে পারেন আপনিও ছুঁয়ে দেখতে পারেন ফুলের সৌন্দর্য। এখানে চাষ করা হয় রজনীগন্ধা, গোলাপ, গাঁদা, গ্লাডিওলাস, জারবেরা, জিপসি, ডালিয়া, চন্দ্রমল্লিকাসহ নানা জাতের হাজারও ফুল।

যেভাবে যাবেন :

ঢাকা থেকে যশোরের বেনাপোল গামী যেকোনো বাসে উঠেই গদখালী নামতে পারবেন। গদখালী বাজারে সকাল থেকেই ফুলের কেনাবেচা শুরু হয়। আর ফুলের গ্রাম ঘুরে দেখতে চাইলে ভ্যান তো আছেই। সকালে ঘুরতে গেলে একই সাথে বিশাল বাজারও ফুলের মেলা উভয়ের স্বাদই আপনি পেয়ে যাবেন। বাসে আপনার সমস্যা হলে আপনি চাইলেও ট্রেনে করে যশোর গিয়েও ঘুরে দেখতে পারেন ফুলের রাজ্য বলে সুপরিচিত এই এলাকা।

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com