নাগাল্যান্ড ভ্রমণ পর্যটন প্রেমীদের জন্য একটি চমৎকার বিকল্প

শান্তি ও নির্মলতার জন্য নাগাল্যান্ড ভ্রমণ পর্যটন প্রেমীদের জন্য একটি চমৎকার বিকল্প হতে পারে। হিমালয়ের পাদদেশের অভ্যন্তরে প্রতিপালিত নাগাল্যান্ড ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত এক সবচেয়ে সুন্দর রাজ্য। নাগাল্যান্ড পর্যটন বিভিন্ন পর্যটন গন্তব্যস্থল জুড়ে পর্যটকদের একটি বিস্ময়কর সফরের জন্য আহ্বান জানায়।

নাগাল্যান্ডের সংস্কৃতি কিংবদন্তী এবং ইতিহাসের একটি সংমিশ্রন। নাগাল্যান্ডে পর্যটকরা ভারতীয় নাগা সম্প্রদায়ের জাতিগত সংস্কৃতির একটি ঝলক পেতে পারেন। নাগাল্যান্ড ২৫ ডিগ্রী ০৬ মিনিট থেকে ২৭ ডিগ্রী ০৪ মিনিট উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯৩ ডিগ্রী ২০ মিনিট থেকে ৯৫ ডিগ্রী ১৫ মিনিট পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত। ১৬.৫২৭ বর্গ কিলোমিটার এলাকা দ্বারা আচ্ছাদিত নাগাল্যান্ড একটি স্বাস্থ্যপ্রদ জলবায়ুর আশীর্বাদপ্রাপ্ত। নাগাল্যাণ্ড পর্যটনের ক্ষেত্রে নাগাল্যাণ্ডের মনোরম জলবায়ুর ব্যাপক অবদান রয়েছে।

এই প্রসঙ্গে কিছু গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্যস্থলের একটি বিশেষ উল্লেখ দেওয়া হল :–

1.শংগন্যু গ্রাম।
2.কোহিমা গ্রাম।
3.বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ সমাধিক্ষেত্র।
4.জাপফু চূড়া।

এছাড়াও নাগাল্যাণ্ড একটি উন্নত সড়ক ব্যবস্থা দ্বারা ভারতের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলির সাথে সুসংযুক্ত। সড়ক যোগাযোগ ছাড়াও নাগাল্যাণ্ডে বিমানপথ ও রেলপথের একটি চমৎকার সংযোগ রয়েছে। নাগাল্যাণ্ডের নিজস্ব বিমানবন্দর রয়েছে ডিমাপুরে যা ভারত তথা বিশ্বের বিভিন্ন অংশের বিভিন্ন গন্তব্যের সাথে নিয়মিত বিমান দ্বারা সংযুক্ত। এছাড়াও নাগাল্যান্ডের রেল স্টেশন ডিমাপুরে অবস্থিত। ডিমাপুরের মধ্যে রেলপথ গুয়াহাটির সঙ্গে সংযুক্ত যা ভারতের সকল প্রধান শহরের সাথে সংযুক্ত।

নাগাল্যান্ড পৌঁছানোর উপায়:
গাল্যাণ্ড আসতে ইচ্ছুক পর্যটকরা কিভাবে এখানে পৌঁছবেন সেটা নিয়ে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন থাকেন। তবে, এটা উল্লিখিত যে নাগাল্যাণ্ড পরিবহনের একটি চমৎকার মাধ্যম দ্বারা সংযুক্ত। যদিও নাগাল্যাণ্ড হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত, তবে নাগাল্যান্ডে ভ্রমণ সমতলভূমিতে ভ্রমণ করার মতই সহজ।

বস্তুত, নাগাল্যান্ডের বিমানপথ, রেলপথ এবং সড়কপথ এই অঞ্চলে একটি অতুলনীয় পরিষেবা প্রদানের জন্য সুপরিচিত। নাগাল্যাণ্ড পর্যটন একটি উত্তম ও উন্নত সড়ক যোগাযোগের সুবিধাযুক্ত। নাগাল্যাণ্ডের নিজস্ব বিমানবন্দর ডিমাপুরে রয়েছে যা কোহিমা থেকে প্রায় ৭৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। ডিমাপুর বিমানবন্দর ভারত তথা বিশ্বের বিভিন্ন অংশের বিভিন্ন গন্তব্যের সাথে নিয়মিত বিমান দ্বারা সংযুক্ত। ভারতীয় বিমানসংস্থা (ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্স) এই অঞ্চলে পরিষেবা প্রদান করে। ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্স কলকাতা থেকে কোহিমা পর্যন্ত দৈনিক বিমান পরিচালনা করে। এছাড়াও নাগাল্যান্ডের রেল স্টেশন ডিমাপুরে অবস্থিত। নাগাল্যাণ্ড ভারতীয় রেলওয়ের উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলপথের আওতায় পড়ে।গুয়াহাটি পরিভ্রমণে ইচ্ছুক পর্যটকরা ডিমাপুর থেকে দৈনিক ট্রেন সুবিধা পেতে পারেন। নাগাল্যাণ্ড রাষ্ট্রীয় সীমানার মধ্যে পরিচালিত সবচেয়ে জনপ্রিয় ট্রেন পরিষেবা প্রদান করে শতাব্দী এক্সপ্রেস যা নাগাল্যাণ্ড পৌঁছানোর সমস্যার সমাধান করে।

নাগাল্যাণ্ড এছাড়াও একটি ব্যাপক সড়ক সংযোগের অধিকারী। ডিমাপুর থেকে চলাচলকারী নাগাল্যাণ্ড রাজ্য পরিবহন নাগাল্যাণ্ডের এক সবচেয়ে জনপ্রিয় বাস পরিষেবা। ব্লু হিলস ও ভলভো বাস নাগাল্যান্ডে চলমান কিছু প্রধান বাস পরিষেবা। এই বাসগুলি ছাড়াও সড়ক পরিবহনের অন্যান্য মাধ্যমগুলি হল – মিনি কোচ ও ট্যাক্সি, যা ভ্রমণকারীদের নাগাল্যান্ডের বিভিন্ন গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে সাহায্য করে।

নাগাল্যান্ডের পরিদর্শনমূলক স্থান:
নাগাল্যান্ডের আকর্ষণ তার প্রাকৃতিক অসাধারণ সৌন্দর্যের জন্য সুপরিচিত। নাগাল্যান্ডের বেশীরভাগ পর্যটক আকর্ষণগুলি সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ধ্বংসাবশেষ এবং সেই স্থানের ঐতিহ্যগত উত্তরাধিকার বহন করে। উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য নাগাল্যান্ড পরিভ্রমণের আদর্শ সময় হল অক্টোবর থেকে মে মাস। নাগাল্যান্ডের খোনোমা দ্বার এই গ্রামের স্থানীয় আদিবাসী বাসিন্দাদের নির্ভীক প্রকৃতিকে প্রতিফলিত করে, যারা ব্রিটিশ অনুপ্রবেশকারীদের থেকে নিজেদের রক্ষা করার জন্য এই বিপুল দ্বার নির্মাণ করেছিলেন। প্রাকৃতিক ঐশ্বর্যের সাথে অন্বিত খোনোমা দ্বার দূরদূরান্ত থেকে বিভিন্ন পর্যটকদের আকর্ষণ করে।

জুকৌ উপত্যকা প্রকৃতির অনুগ্রহ অনুভব করতে পর্যটকদের একটি চমৎকার সুযোগ প্রদান করে। ২৪৩৮,৪ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত জুকৌ উপত্যকা নাগাল্যান্ডের চিত্রানুগ দৃশ্যপটের একটি অসাধারণ দৃশ্য প্রদান করে।

জাপফু চূড়া এই অঞ্চলের উচ্চ পাহাড়ের খাড়া ঢাল স্কেলিং এবং ট্রেকিং-এর জন্য এক আদর্শ গন্তব্য। নাগাল্যান্ডের তুলি শহর তার অনন্য প্রাকৃতিক ঐশ্বর্যের জন্য সুপরিচিত। ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যের মোককচং জেলায় অবস্থিত,তুলি শহরের নির্মল পারিপার্শ্বিক তার শান্তি ও সতেজতার সাথে দর্শকদের মনকে পুনরুজ্জীবিত করে তোলে।

নাগানিমোরা এই অঞ্চলের বিভিন্ন রোমাঞ্চকর ক্রীড়ার মাধ্যমে পর্যটকদের তাদের সহজাত ক্রীড়া উদ্দীপনা এবং ক্রীড়াবিদ মনোভাব অন্বেষণের একটি সুযোগ প্রদান করে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের আশীর্বাদপ্রাপ্ত নাগানিমোরা বিভিন্ন পর্যটকদের আকর্ষণ করে যারা এখানকার মনোরম দৃশ্য দ্বারা শিহরিত হয়।

চাংতংগ্যা এবং মেলুরি নাগাল্যান্ডের বিশিষ্ট পর্যটন গন্তব্য যা সমৃদ্ধ প্রাকৃতিক ঐশ্বর্য দ্বারা অন্বিত। সুনির্মিত সড়ক দ্বারা রাজ্যের সকল প্রান্ত থেকে নাগাল্যান্ডের পর্যটন স্থানগুলি সহজে প্রবেশযোগ্য।

Source: Rashed Khan‎ View Bangladesh The Travelers

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com