প্রকৃতি এক অনন্য অপার সৌন্দর্য আধার চন্দ্রনাথ পাহাড়

যারা সময় স্বল্পতা, বেশি টাকার জন্য ঘুরতে বের হচ্ছেন না তাদের জন্য চন্দ্রনাথ পাহাড় সবথেকে সেরা একটি অসাধারণ জায়গা।

চন্দ্রনাথ পাহাড় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১২০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত।
সীতাকুন্ড শহরের অদূরে অবস্থিত এই পাহাড়।
প্রকৃতি এত সুন্দর চন্দ্রনাথ পাহাড় এর চূড়ায় না উঠলে বিশ্বাস হয় না।

শীত /বর্ষা /গরম তিন কালে তিন রকম সৌন্দর্য দেখা যায়।

চন্দ্রনাথ পাহাড় যাওয়া সহজ খুব। বাসে যেতে হলে
ঢাকা সায়দাবাদ /কমলাপুর থেকে সীতাকুন্ড বাসে উঠতে হবে। তারপর সীতাকুন্ড বাজার নেমে যেতে হবে।

ট্রেনে গেলে ঢাকা থেকে রাত ১০.৩০ মিনিটে চট্টগ্রাম মেইল ট্রেন ছাড়ে, সকাল ৬.৩০/৭.০০ দিকে সীতাকুন্ড স্টেশনে পৌঁছায়।

স্টেশনে নেমে সকালের নাস্তা করে স্টেশনের আউটার সিগনাল থেকে সিএনজি /অটো তে একদম চন্দ্রনাথ পাহাড় এর পাদদেশে নিয়ে যাবে।

পাদদেশে নেমে শুরু করবেন রাস্তা ধরে হাটা, যাবার সময় সামনে ছোট ছোট দোকান পরবে সেখান থেকে বাশ এবং হালকা পানীয়, চিপস নিয়ে যাবেন।
বাশ অবশ্যই নিতে হবে কারন বাশ ছাড়া পুরো পাহাড় ট্র>্যাকিং করা অনেক কষ্ট হয়ে যাবে।
একটু যাবার পর আপনি প্রথমে ছোট কৃত্রিম ঝর্ণা মত পাবেন ওখান থেকেই মূলত চন্দ্রনাথ চূড়ায় যাবার দুইটি আলাদা পথ সৃষ্টি হয়েছে।
অবশ্যই আপনি কৃত্রিম ঝর্ণা বাম দিকে রাস্তা ধরে ট্র>্যাকিং করা শুরু করবেন তারপর প্রথম পাবেন শিবমন্দির তারপর ওখানে কিছুক্ষণ থেকে আবার পূর্ব দিকের পথ ধরে হাটা শুরু করবেন তারপর পৌঁছে যাবেন চন্দ্রনাথ মন্দির বা সর্বোচ্চ চূড়া।

সারাদিন ঘুরে দুপুরে চলে আসবেন আবার সীতাকুন্ড বাজার।
সেখান থেকে বাস আছে ঢাকা আসার। অথবা ট্রেনে আসতে চাইলে মিনি বাস দিয়ে ফেনী স্টেশনে চলে আসবেন।
বিকাল ৫.০০ টায় ফেনী থেকে ঢাকা অভিমুখী ট্রেন আছে মহানগর_গোধূলি।

আমরা ট্রেনে গিয়েছি তাই আমাদের খরচ তালিকা দিয়ে দিলাম আপনাদের সুবিধা হতে পারে।

ঢাকা – সীতাকুন্ড ১১০ (মেইল ট্রেন)
নাস্তা ৩৫/৪০
সীতাকুন্ড – চন্দ্রনাথ পাহাড় ২০
বাশ ২০
পাহাড় – সীতাকুন্ড বাজার ২৫
সীতাকুন্ড বাজার -ফেনী ৫৫/৬০
ফেনী -ঢাকা ২৬৫
(নিজস্ব খরচ ব্যাতিত)

বিঃদ্রঃ দয়াকরে প্লাস্টিক বোতল বা পচনশীল নয় এমন ময়লা ফেলে প্রকৃতি, পাহাড় এর সৌন্দর্য নষ্ট করবেন না।

Source: Mehidi Akash‎ <Travellers Of Bangladesh

Share:

Leave a Comment

Shares