ভ্রমন প্রিয় মানুষদের জন্য এক দিনেই ৪ জাইগা ঘুরে আসার দারুন সুযোগ

… যদিও কষ্ট হবে তার পরেও একটু কষ্ট করলেই ১০০০ হাজার টাকার ভিতরে ভালো ভাবেই ৪ জাইগা ভ্রমন করে আসতে পারবেন…

আমাদের গ্রুপ ছিল ৬ জনের,রাতে খেয়ে দেয়ে ১০.৩০ তে কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে চট্রগ্রাম মেইল ট্রেনের (৬*১২৫)=৭৫০ টাকা টিকেট কেটে আড্ডা মাস্তি করতে করতে রহনা দিলাম..রাতের স্টেশন বিরতিতে আড্ডা চল্লো চায়ের সাথে…৬.৪৫ এ পৌছলাম সীতাকুণ্ড স্টেশনে কিছু ফটো সেশন করে সেখান থেকে পায়ে হেটে গেলাম সীতাকুণ্ড বাজারে,নাস্তা সেরে নিলাম (২০০) টাকা… পরে বাজার থেকে একটু সামনে এগিয়ে ১বা ২ মিনিট সামনে ৭.৩০ তে সি এন জি ঠিক করে নিলাম ১ টি কুমিরা বাজার পর্যন্ত (১৫০) টাকা যদিও আমাদের এইখানে লাভ হইছে… সেখান থেকে অটো করে একেবারে ব্রিজ কুমিরা ব্রিজ ছবিতে প্রথম টা… (৬*১৫=৯০টাকা)৮ টা বাজে পৌছলাম…ঘুরে ফিরে ৮.৪৫ এ রহনা দিলাম আবার (৬*১৫=৯০)… সেখান থেকে একেবারে সি এন জি চুক্তি করলাম বাশবাড়ী বীচ ঘুরিয়ে বাড়বকুন্ড অগ্নি ঝর্না +অগ্নি মন্দির… (৪০০) টাকা ৯.১০ তে বাশবাড়ীয়া বীচ ২য় ছবি ঘুরে ফিরে ১০ টায় রহনা দিলাম বাড়ব কুন্ড এর উদ্দশ্যে বাজারে এসে চা বিস্কুট খেয়ে , বিস্কুট পানি নিয়ে নিলাম (৩০+৭০=১০০) পানি ৬ লিটার =৯০টাকা এবং ১০০ টাকার বিস্কুট… ব্যাস আবার স্টার্ট হলো যে পর্যন্ত সি এন জি যেতে পারবে,১০.৪০ লাগলো একেবারে পাহাড়ের গায়ে যেতে… নেমে ভাড়া দিয়ে হাটা শুরু প্রায় ক্লান্ত হয়ে ,১১.২০ গেলম পৌছে অগ্নীকুন্ড বসে রেস্ট নিয়ে পানি খেয়ে বিস্কুট খেয়ে ঘুরলাম ৩য় নং ছবি অগ্নিকুন্ড.তারপরে আবার স্টার্ট করলাম ১১.৫০ এ ট্রাকিং এবার পাহাড় ঝর্ণা এর খোজে, ঝর্নার ধারা ধরে হাটা শুরু করলাম… ১২.৪০ এ গিয়ে থেমে গেলাম আর গেলাম না কারন পানি নাই ঝর্না মরে গেছে.৫ মিনিট রেস্ট নিয়ে. ওইখানে বড় একটা কুপে গোসল সারলাম সবাই. ১ টায় আবার চলা শুরু.রোবোটের মত হেটে. ২.২০ এ এসে একেবারে বাড়বকুন্ড বাজারে এসে থামলাম,আসার পথে জংগলের ভীতরে ৫ নং ছবিতে প্রানিটা আমাদের চোখ এড়াতে পারে নাই… হোটেল খুজে ফ্রেশ হয়ে খেয়ে নিলাম ৫০০টাকা খাবারের দাম অনেক কম ছিল বাজারের একেবারে মুখেই দোকান টা রান্না অনেক ভালো … ৩.০৫ এ আবার আসলাম সীতাকুণ্ড বাজারে (৬*১০=৬০ টাকা)সেখান থেকে লেগুনা করে চলে আসলাম কায়াকিং করতে ঠাকুর দিঘি..৩.৫০ পৌছলাম… লেগুনা আসবেনা তারপরেও সিস্টেম করে আনলাম অনেক স্প্রিডে চালিয়েছিল… (৫০*৬=৩০০)… নেমে চা নাস্তা করে (১০০ টাকা) আবার সি এন জি নিয়ে মহামায়া লেইক এ… (৬*১৫=৯০ টাকা) গিয়ে সাইদুল ভাই এর সাথে পরিচিত হয়ে পরিচয় দিলাম শামিম ভাই এর, ভাগ্য ভালো ছিল আমারা যাওয়া মাত্রই কায়াকিং করে ২ টা বোর্ড এসেছিল তাই ৪.২০ তে কায়াকিং শুরু করে ছিলাম… ৫.১০ তে শেষ করি।(আমাদের মুল উদ্দেশ্যই ছিল এটা…) (৩*২০০ =৬০০ টাকা) স্টুডেন্ট কার্ড ছিল বলে ২০০ টাকা তাছাড়া ৩০০ টাকা করে প্রতি বোর্ড … ৬.৩০ এ আবার বের হলাম ঠাকুর দিঘি বাজারে আসলাম (৬*১৫=৯০ টাকা) আবার চা বিস্কুট ১০০ টাকা… পরে ওইখান থেকে লেগুনা করে বারোইহাট বাজারে ৭.২০ তে(১৫*৬=৯০) সেখান থেকে বাসে ফেনি (২০*৬ =১২০ টাকা) পরে সেখান থেকে স্টেশনে (১০*৬= ৬০ টাকা) চা নাস্তা খেয়ে ৮.০০ বের হয়ে বাজারে গেলাম খেয়ে দেয়ে (৭০০) টাকা ৮.৪৫ এ আবার স্টেশনে… টিকেট কাটলাম (৬*৯০=৫৪০ টাকা) চ নাস্তা ১২.২০ পর্যন্ত ৩০০ টাকা, পরে রাত ১২.৩২ এ ট্রেন আসলো এই সময়ে স্টেশনেই বসে ছিলাম… সকালে আসলাম নেমে আর হাট্টে পারি না কারন টিকেট কেটেও সিট পাই নাই… এ ঘন্টা পরে একজন করুনা করে সিট দিয়েছিল… টোটাল কষ্ট
( ৭৫০+২০০+১৫০+৯০+৯০+ ৪০০+১০০+৯০+১০০+৫০০+৬০+৩০০+১০০+৯০+৬০০+৯০+১০০+৯০+৬০+৭০০+৩০০+৫৪০= ৫৫০০\৬=৯১৬ টাকা…

Post Copied From:Azizul Islam‎>Travelers of Bangladesh (ToB

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com