মাত্র ৭ দিনে ঘুরে আসুন – পৃথিবীর ভূস্বর্গ কাশ্মীর

মাত্র — ৭ দিনে ঘুরে আসুন – পৃথিবীর ভূস্বর্গ কাশ্মীর
—————————————————————–
সম্প্রতি আমি কাশ্মীর নিয়ে একটি পোস্ট করেছিলাম – যেখানে আমার ভ্রমনের বিস্তারিত সকল কিছু ছিল – আগ্রা এবং দিল্লী সহ এবং সেটা ছিল অনেক লম্বা একটি ট্যুর –
কিন্তু আমাদের মধ্যে অনেকেই এত লম্বা ট্যুর দিতে পারি না জব এবং অন্যান্য কাজ থাকার কারনে – এবং অনেকেই শুধু কাশ্মীর সম্পর্কে জানতে চেয়েছিল- তাই আসছে ঈদের ছুটি কে সামনে রেখে – আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে খরচ সহ, কম সময়ে এবং শুধু কাশ্মীর কে নিয়ে –সবার জন্য একটি ট্যুর প্ল্যান করেছি – আসা করি সবার উপকারে আসবে —
——————————————————————-
গ্রুপ মেম্বার (৫-৬ জনের)

যাত্রা শুরু – ঈদের পর দিন অথবা ঈদের ছুটি তে –
————————————
দিন ১-

সকাল ৬.৩০ এ ঢাকা থেকে বাসে অথবা ট্রেনে কলকাতার উদ্দেশে রওনা দিবেন এবং ঢাকা থেকে কলকাতা পৌঁছাবেন সন্ধ্যা ৭.২০ মিনিটে –কলকাতায় পৌঁছে এয়ারপোর্টের আশে পাশে কোন হোটেলে উটবেন – রাতে রেস্ট নিয়ে ভোঁর ৪ টার দিকে কলকাতা এয়ারপোর্টে চলে যাবেন –

খরচ (জন প্রতি হিসাব )- ঢাকা থেকে কলকাতা – বাস অথবা ট্রেন ( এসি) – ১৭০০ টাকা , হোটেল – ৫০০ টাকা , খাবার – ৩০০ টাকা – অন্যান্য – ৩০০ টাকা (যদি লাগে )

মোট খরচ- ১৭০০+৫০০+৩০০+৩০০ = ২৬০০ /= টাকা

————————————————-
দিন ২ –

খুব ভোঁরে এয়ারপোর্টে চেক ইন করে – ৫.২০ এ INDIGO AIR (কানেকটিং ফ্লাইট- জম্মু হয়ে যাবে- এই ফ্লাইটই সব চেয়ে কম বিরতি দিয়ে কম সময়ে যাবে ) এ সরাসরি কাশ্মীর চলে যাবেন এবং কাশ্মীরে পৌছাবেন সকাল ৯.৫০ মিনিটে — তারপর ঐ দিন হোটেলে সব কিছু রেখে এবং ফ্রেশ হয়ে — শ্রীনগর শহরের আশেপাশে সকল সাইট সিয়িং দেখবেন এবং ডাল লেকের আশে পাশে নৌকা দিয়ে ঘুরবেন —এছাড়া শহরের ভেতরে ৩ টা গার্ডেন ঘূরে দেখবেন – এইভাবে আপনাদের কাশ্মিরের ১ম দিন শেষ করবেন —
শ্রীনগরে- মোঘল গার্ডেন, পরি মহল, বোটানিক্যাল গার্ডেন এবং ডাল লেক ও নাগিন লেকে শিকারা রাইড এবং আরও কিছু পুরাতন মসজিদ।

খরচ (জন প্রতি হিসাব )– কলকাতা থেকে কাশ্মির – বিমান – ১০,০০০-১৩,০০০ /=
হোটেল খরচ- ৮০০ টাকা , কাশ্মীর সারাদিনের জন্য ট্যাক্সি – ৫০০ টাকা – খাবার – ৫০০ , অন্যান্য খরচ – ৫০০ টাকা (যদি লাগে )

মোট খরচ- ১০,০০০-+৫০০+৫০০+৮০০+৫০০ =১২,৩০০ /= টাকা
——————————————————————————

দিন ৩ –

৩য় দিনে সকাল সকাল বের হয়ে যাবেন পেহেলগামের উদ্দেশে – পেহেলগামের কিছূ স্পট সহ সারাদিন ঘুরে রাতে আমরা পেহেলগাম হোটেলে থাকবেন —
লিদার নদী, বেতাব ভ্যালী, আরু ভ্যালী, চন্দন বাড়ী এবং ঘোড়ায় ট্রেকিং করে পেহেলগাম ভিউপয়েন্ট, মিনি সুইজারল্যান্ড খ্যাত বাইসারান, ধাবিয়ান, কাশ্মীর ভ্যালী ভিউপয়েন্ট, কানিমার্গ, Waterfall, তুলিয়ান ভ্যালী ইত্যাদি। পায়ে হেঁটেও যাওয়া যায়। তবে বৃষ্টি হলে রাস্তা অনেক পিচ্ছিল থাকে। আর তাছাড়া ঘোড়ায় চড়লে একটু Adventure ও হয়।

খরচ (জন প্রতি হিসাব ) —
হোটেল খরচ- ৮০০ টাকা , টাটা সোমো কার – ৮০০ টাকা – অন্যান্য খরচ -৮০০ টাকা – খাবার – ৬০০ টাকা
মোট খরচ- ৮০০+৮০০+৮০০+৬০০ = ৩০০০ /= টাকা

—————————————————————————

দিন ৪ – ৪র্থ দিনে – পেহেলগামের বাকী সকল স্পট – সারাদিন ঘুরে রাতে শ্রীনগর চলে আসবেন এবং ঐ দিন শ্রীনগর হোটেলে থাকবেন —

খরচ (জন প্রতি হিসাব ) —
হোটেল খরচ- ৮০০ টাকা , টাটা সোমো কার – ৮০০ টাকা – অন্যান্য -৬০০ টাকা , খাবার – ৬০০ টাকা
মোট খরচ- ৮০০+৮০০+৬০০+৬০০ = ২৮০০ /= টাকা

———————————————————————-

দিন ৫ – ৫ম দিনে সোনমার্গ এ সারাদিন ঘুরে আবার শ্রীনগর এসে থাকবেন রাতে – সোনমার্গ হল কাশ্মিরের আরেকটি সুন্দরতম জায়গা—যেটা খুবই ভাল লাগবে সবার ।
সোনামার্গ : প্রধানত থাজিওয়াস হিমবাহ। এছাড়া সিন্ধ নদী, Waterfall, বাজরাঙ্গী ভাইজান ও রাম তেরে গঙ্গা মেরে ছবির স্যুটিং স্পট। ‪

খরচ (জন প্রতি হিসাব ) —
হোটেল খরচ- ৮০০ টাকা , টাটা সোমো কার – ৮০০ টাকা – অন্যান্য -৬০০ টাকা – খাবার – ৬০০ টাকা

মোট খরচ- ৮০০+৮০০+৬০০+৬০০ = ২৮০০ /= টাকা

——————————————————————-

দিন ৬ – এই দিনে আপনারা গুলমার্গ ঘুরবেন সারাদিন – এবং কেবল কারে ১৪০০০ ফিট উপরে যাবেন — সারাদিন ঘুরে শ্রীনগর চলে আসবেন —- ৬ষ্ট দিনে আপনারা আপনাদের – স্বপ্নিল কাশ্মীর ভ্রমন শেষ করবেন – এবং শেষ দিনে কাশ্মিরের লোকাল মার্কেটে যাবেন – শাল সহ আরও আকর্ষণীয় কিছু কেনা কাটার জন্য ।

গুলমার্গেঃ গন্ডোলা (ক্যাবল কার), গলফ কোর্স, বাবা ঋষির মাজার,আফারওয়াত পিক, সেন্ট ম্যারী চার্চ।

খরচ (জন প্রতি হিসাব ) —
হোটেল খরচ- ৮০০ টাকা , টাটা সোমো কার – ৭০০ টাকা – অন্যান্য -১৬০০ টাকা (কেবল কার সহ ) , খাবার – ৫০০ টাকা
মোট খরচ- ৮০০+৭০০+১৬০০+৫০০ = ৩৬০০ /= টাকা

————————————————————————–

দিন ৭ – ৭ম দিনে কাশ্মীর পর্ব শেষ করে আপনারা সরাসরি কলকাতা চলে আসবেন এবং শ্রীনগর থেকে সরাসরি কলকাতার ফ্লাইট পাবেন – (INDIGO AIR এ – সকাল ১০.২৫ মিনিটে ছাড়বে এবং পৌছে যাবেন দুপুর ১.২০ মিনিটে – ২ ঘণ্টা ৫৫ মিনিট ) –

খরচ (জন প্রতি হিসাব ) —সকালে নাস্তা – ১০০ টাকা – কাশ্মীর থেকে কলকাতা বিমান ভাড়া – ৮০০০-৯০০০ টাকা – অন্যান্য – ৫০০ টাকা
মোট খরচ – ৯০০০+১০০ + ৫০০ = ৯,৬০০ টাকা /=

বি – দ্র – আমি কলকাতা পর্যন্ত শেষ করে দিয়েছি – কারন অনেকেই কলকাতা এসে থাকতে পারেন – কেনা কাটার জন্য অথবা ঐদিনই চলে আসতে পারেন – তাই সেটা আপনারা নিজের মত খরচ বসিয়ে নিবেন – কলকাতা থেকে ঢাকা পর্যন্ত —
এবং ট্যুর প্ল্যান আরও অনেক পরিবর্তন হতে পারে — সেটা আপনাদের নিজেদের প্রয়োজনে – ।
———————————————————————
নোট —
——————
১- সকল হিসাব আমি রূপী তে ধরে টাকা তে কনভার্ট করে – হিসেব টা দিয়েছি —

২- বিমানের টিকেট আরও কম অথবা বাড়তে পারে- সেটা নির্ভর করে কত আগে আপনারা বুকিং দিতে পারবেন — তাই ভাল হবে অনেক আগেই আপনারা বুকিং দিয়ে দিবেন ।

৩- অন্যান্য খরচ বলতে আমি বুঝিয়েছি – এয়ার পোর্ট থেকে হোটেলে ট্যাক্সি ভাড়া, বিভিন্ন স্পটে ড্রেস ভাড়া , কেবল কার , হর্স রাইডিং , শিকারা সহ আরও অনেক কিছু – তাই যদি না লাগে তাহলে অন্যান্য খরচ আপানাদের কমে যেতে পারে ।

৪- ২ বিমানে আসা যাওয়াই কিন্তু অনেক চলে যাচ্ছে – প্রায় ২০ হাজারের মত – আপনার হাতে যদি সময় কম থাকে এবং আপনি যদি কম সময়ে ঘুরে আসতে চান – তাহলে এটা ছাড়া কিছুই করার নেই —

৫- যাদের আরেটূ বেশী সময় আছে তাদের কে আমার সাজেশন হল — জম্মূ পর্যন্ত যাবেন বিমানে তারপর জম্মু থেকে কাশ্মীর – কারে কারন– ঐ রাস্তা টি আপনার মন কেড়ে নিবে – এত সুন্দর —

৬- (৫-৬ জনের গ্রুপে আমি জন প্রতি হিসেব ধরেছি – ৩ স্টার মানের মোটামোটি ভাল হোটেল ধরেছি- এবং টাটা সোমো জিপের ভাড়াও জন প্রতি- তাই আশা করি কেউ ভুল বুঝবেন না- মাত্র ৮০০ এবং ৬০০ টাকায় হোটেল এবং জিপ পাওয়া যাবে )–
আপনারা যদি আরও কম দামের হোটেলে থাকেন অথাব আরও কমে পান তাহলে বাজেট আপনাদের আরও কমে যাবে –
হিসেব টা হবে– ৮০০ বা ৬০০ * ৫ = ৪,০০০ অথবা ৩০০০ – এমন !!!
———————————————————————-

সম্ভাব্য কিছু প্রশ্ন ও উত্তর —-
——————————————–
১- প্রশ্ন – কাশ্নীর যাবার উপযুক্ত সময় কখন ?
উত্তর – কাশ্মীর ঘোরার উপযুক্ত সময় মে থেকে আগস্ট পর্যন্ত। তবে কাশ্মীরের পুরো রুপ দেখতে চাইলে আপনাকে অন্তত ২ বার যেতে হবে।
মে থেকে আগস্ট হল – অন সিজন এবং চারদিকে সবুজের সমারোহ —
এবং
চারিদিকে শুধু Snow, snow & snow. আর Snow fall দেখতে চাইলে আপনাকে যেতে হবে — ‎ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাসে
তাই সবদিক বিবেচনা করলে এবং আপনি যদি একবার যেতে চান, তাহলে মে-আগস্ট উপযুক্ত সময়।

২- প্রশ্ন – বিমানের টিকেট কিভাবে বুকিং দিব – ?

উত্তর- বিমানের টিকেট আপনারা (www.cleartrip.com/flights) এ বুকিং দিতে পারেন এবং সার্চ দিয়ে দিয়ে দেখবেন – কখন কম প্রাইসে পাওয়া যায় – পেমেন্ট দিতে হবে ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড (ব্রাক ব্যাংক, সিটি বাংক) অথবা মাস্টার কার্ডে.

Post Copied From: Mohammad Hasan Rubel‎ >Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com