যাহা বলিব সত্য বলিব.

সবাইকে পাহাড়ে যেতে শুনেছি, পাহাড়ের চুড়ায় উঠে মেঘের সাথে গা ভাসিয়ে দিতে শুনেছি। কিন্তু নিজে কখনো যাইনি, মেঘের সাথে গা ভাসানোও হয়নি। অনেক দিনের সে ইচ্ছে কিছুটা পুরন হয়েছে চন্দ্রনাথের পাহাড়ের চুড়ায় উঠে। গত শুক্রবার সকালে ঘুম থেকে উঠে বেরিয়ে পরি চন্দ্রনাথের পাহাড়ের উদ্দেশ্যে। চট্টগ্রাম থাকার সুবাদে আমার খুব কাছেই ছিল গন্তব্য। অলংকার থেকে বাস এ ৪৫ মিনিটের পথ (ভাড়া ৪০ টাকা)। বাস থেকে নেমে অটো করে চন্দ্রনাথের মন্দির (রিসার্ভ ভাড়া ৫০-৬০ টাকা)। বেস শুরু হল অভিযান “চন্দ্রনাথের পাহাড়”। তবে অভিযানের শুরুতেই পেয়ে গেলাম TOB এর এক মেম্বারকে। সে একা, পরিচয় হল। এবার শুরু করলাম পাহাড়ে উঠা, উঠতে উঠতে জানতে পারলাম, সেই ভাইটি এরি মধ্যে বাংলাদেশের ৫১ জেলা ঘুরা শেষ। কথা বলতে বলতে ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটের একটু বেশি সময় লেগেছিল পাহাড়ের চুড়ায় চন্দ্রনাথের মন্দিরে পৌছতে। প্রথম দর্শনে সাদা মেঘের ছোয়া যেন ঊশ্ন অভিনন্দন জানালো আমাদের। সেদিনি প্রথম দেখা মেঘের সাথে। সেখানে কিছুক্ষন থেকে নেমে এসে চলে যাই বাশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকত। সেখানে কিছুক্ষন থেকে চলে আসি আপন নিড়ে। প্লান আছে সামনে আরো tour দেয়ার।
সত্যি কথা, এর সবই হয়েছে TOB এর পোস্ট গুলো দেখে। এই গ্রুপ এর পোস্ট গুলো ঘর মুখো মানুশকেও বাধ্য করবে অজানার উদ্দেশ্যে হারিয়ে যেতে।
জয় TOB এর জয়, ভ্রমন পিপাসা মানুশের মাঝে বেচে থাকুক সবসময়…….

Post Copied From:Roy Subrata‎>Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com