সোনার চর সি-বিচ।

পটুয়াখালী জেলার সর্ব দক্ষিনের এক অপার সৌন্দর্য।এই সমুদ্র সৈকতে একই সাথে পাবেন ঝাউবন,কাশবন ও ম্যানগ্রোভ।প্রায় সাত কি:মি: দীর্ঘ বালুকাবেলায় রয়েছে অগনিত লাল কাকড়ার বসবাস।সম্পূর্ন জন বিচ্ছিন্ন এই রাজ্যে হিংস্র জন্তুরাই রাজা।বনে অাছে হরিণ, শিয়াল,বনমোষ,মেছো বাঘ,অজগর সহ নানা প্রজাতির সাপ।শীতকালে থাকে অতিথী পাখির কলকাকলি। সূর্যাস্তের সময় সমগ্র বিচ সোনালি রঙ ধারন করে তাই এর নাম রাখা হয়েছে সোনার চর।
কুয়াকাটার মত এখানেও সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত একই জায়গায় দাড়িয়ে দেখতে পারবেন। সোনার চর বনবিভাগ ঘোষিত অভয়অরন্য। সৈকতে ইলিশের মৌসুমে কিছু জেলে নৌকা ছাড়া মানুষ থাকেনা।এখানে নিরাপত্তার কারনে রাতে থাকা যায় না।সমগ্র সৈকত ভাল ভাবে ঘুরতে স্থানীয়দের সাহায্য নিতে হবে।সূর্যাস্ত মিস করবেন না।
~যে ভাবে যাবেন~
=সদর ঘাট থেকে রাঙাবালী গামী লঞ্চে উঠে চর কাজল নামতে হবে।ভাড়া ৩০০-৩৫০ টাকা।
=তারপর স্থানীয় ছোট লঞ্চে করে চর মন্তাজ।ভাড়া ৫০-৭০ টাকা।
=চর মন্তাজ থেকে ট্রলার ভাড়া করে সোনার চর।ভাড়া ১০০০-১৫০০ টাকা।

Post Copied From:Shubhro Akash‎>Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com