স্ট্রবেরী এবং রডডেনড্রন, নর্থ সিক্কিম, ভারত

আমরা যারা সিক্কিম গিয়েছি বা যাবো তারা সবাই সিক্কিমের বরফে ঢাকা পাহার, ভ্যালী আর লেকের সৌন্দর্যের ব্যাপারে কমবেশি জানি। গ্রুপে অলরেডি অনেক পোস্ট হয়ে গেছে সিক্কিম নিয়ে। আমি একটু অন্য বিষয় নিয়ে বলবো যা হয়তো অনেকেই জানেন না।

সিক্কিম রডডেনড্রন ফুলের জন্য বিখ্যাত। একটা ফুল এত ধরনের আর এতো কালারের আরেকটা আছে কিনা আমার জানা নেই। ফুলের নাম যতটা কঠিন, দেখতে ঠিক ততটাই সুন্দর।আমি সহজ একটা ছদ্ম নাম দিলাম (ড্রাগন ড্রাগন)। আমি কখনো ফুল দেখে এতটা অবাক হইনি এর আগে। বছরের এই সময়টাতে রডডেনড্রন দেখতে পাওয়া যায়(এপ্রিল-মে) সবচেয়ে বেশি। এটি নেপালের জাতীয় ফুল। উত্তর আমেরিকা আর ইউরোপের কিছু দেশেও দেখা যায়। ওয়েষ্ট ভার্জিনিয়া আর ওয়াশিংটন ডিসির প্রধান ফুল এটি। মূলত এশিয়া অঞ্চলের পাহাড়গুলতে শীতের শেষে আর গরমের শুরুতে এই ফুলগুলো তাদের সৌন্দর্য মেলে ধরে। সিক্কিমের রাজধানী গ্যাংটক থেকে নর্থ সিকিমে যাওয়ার পথে আপনারা এই ফুলগুলো রাস্তার দইুদিকে দেখবেন। মোটামুটি সবার বাড়ির সামনে লাগানো থাকে। সবচেয়ে বেশি চোখে পরবে লাচুং থেকে ইয়ামথাং ভ্যালিতে যাওয়ার সময়। রাস্তার দুদিকে বিভিন্ন রঙের রডডেনড্রন দেখে আপনার মনে হবে আপনি ফুলের রাজ্যে চলে এসেছেন। ক্ষনিকের জন্য নিজেকে ভিআইপি মনে করতে পারেন। এরকম ফুলেল অভ্যর্থনা ভিআইপি ও কোনদিন পায় নি। স্নো পয়েন্টের দিকে যতোই যাবেন আপনি ততোই মুগ্ধ হবেন।

স্ট্রবেরী: স্ট্রবেরী খেতে কার না ভালো লাগে। লাল রসালো এই ফল আমাদের দেশে ব্যায়বহুল আর দুর্লভ জিনিশ। কিন্তু আপনি সিক্কিমের রাস্তার দুদিকে ভালোমতো তাকালেই এই দুর্লভ জিনিশটা দেখতে পাবেন। কি অবাক হচ্ছেন। হ্যা আমিও অবাক হয়েছি যখন আমাদের ড্রাইভার বললো এইগুলা সত্যি স্ট্রবেরী। কারুম হট ন্যাচারাল ফলসে যখন নামলাম দূর থেকে দেখলাম ড্রাইভার আর আমাদের টিমমেট কি যেনো খুজছে। জিজ্ঞেস করতেই মাথায় আকাশ ভেজ্ঞে পরলো। স্ট্রবেরী তাও রাস্তার পাশে। ঝরনা বাদ দিয়ে সবাই স্ট্রবেরী খোজা শুরু করলো। যদিও সাইজে ছোট কিন্তু খেতে ভালোই। কিছুক্ষণ পর আর একটা ঝরনাতে থামলাম সেখানেও একি জিনিশ। সবাই প্রকৃতি বাদ দিয়ে স্ট্রবেরী খুজছিলাম। আর এইগুলা দেখে আমাদের ড্রাইভার ইন্দ্রদার সে কি হাসি। কিছুক্ষণ পরপরি বলে “আরে কেয়া হো গায়া তুম লোগোকো, আগে চালো বোহাত মিলেগা”। বেচারাকে কিভাবে বুঝাই আমাদের কাছে জংলি স্ট্রবেরী অনেক ভালো লেগে গেছে।

নর্থ সিকিম পুরাপুরি প্লাস্টিক ফ্রি জোন, কোন প্লাস্টিক সাথে রাখলে জরিমানার সম্মুক্ষিন হবেন। তাছাড়া যেখানেই যাবেন আপনার আশপাশ পরিষ্কার রাখবেন। মনে রাখবেন জায়গাটা সুন্দর আর পরিষ্কার দেখেই আমরা এতদূর থেকে দেখতে যাই। ধন্যবাদ

Source:  Farsadul Haque Showrov‎ <Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com