কুতুবদিয়া দ্বিপ

কি কি দেখবেন…..
প্রথমত কক্সবাজারের মত লম্বা একটা সী-বিচ দেগবেন যেখানে ভিড পোহাতে হবে না।বিচে সন্ধ্যা বেলার সূর্য ডুবার দৃশ্য আপনার মন ভরিয়ে দিবে।এখন যেহেতু শীতকাল বিচে হাজার হাজার অতিথি পাখি দেখেবেন।তারপর দেখবেন হাজার হাজার লাল কাঁকডার ঝাক।এক কথায় আপনি দারুন উপভোগ করবেন বিচের সময় টা।তারপর দেখবেন বায়ু বিদ্যুৎ,এখানে বিকালটা অসাধারণ লাগবে আপনার কাছে।পাশাপাশি দেখবেন লবণের মাঠ অর্থাৎ লবণ কিভাবে চাষ করা হয় এবং লবণ চাষীদের জীবন যাত্রা।এখন যেহেতু শীতকাল পূরুধমে শুটকি উৎপাদন চলতেছে কুতুবদিয়ায়।এই দৃশ্য টাও দারুন উপভোগ করতে পাবেন।পশ্চিম পাশে বিশাল সমুদ্র যুক্ত সী-বিচ,বায়ু বিদ্যুৎ,শুটকি উৎপাদন আর নবণের চাষ,অতিথি পাখি আনাগোনা,বিচে ফুটবল খেলার দৃশ্য ইত্যাদি আরো অনেক দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন কুতুবদিয়া দ্বিপে।সবশেষে ফিরে আশার দিন কুতুবদিয়ারর বাতিঘর হয়ে মালেক শাহ(রঃ) এর মাজার জিয়ারত করে আসতে পারবেন।
কিভাবে যাবেন…..
ঢাকা টু চট্টগ্রাম।
চট্টগ্রাম থেকে দুইভাবে যাওয়া যায়…..।
চট্টগ্রাম ফিরিঙ্গা বাজার থেকে সকাল ৭ টায় ছেডে যাওয়া বোট,ভাড়া জনপ্রতি ১০০ টাকা,ওটা আপনাকে কোন ঝামেলা ছাড়া বিশাল সমুদ্র দেখাতে দেখাতে কুতুবদিয়ার বড়ঘোপ ঘাঠে নামাই দিবে,ওখান থেকে রিক্সায় ৩০ টাকায় বড়ঘোপবাজার।তবে আপনাকে ৬.৩০ মিনিটের আগে বোটে উঠতে হবে,এতে বোটে মন মত বসার জায়গা পাবেন।
দ্বিতীয়,আগে এস.আলম যেতো,এখন যায় না।এখন যেটা করবেন চট্টগ্রাম নতুন ব্রিজ পার হয়ে মইজ্যারটেক চলে যাবেন,ওখান থেকে সিএনজি করে সোজা মগনামা ঘাট,ভাডা জনপ্রতি ১৬০ টাকা।মগনামা ঘাট থেকে স্পিড বোটে ৬০ টাকা(জনপ্রতি) এবং লোকাল বোটে ২০ টাকা(জনপ্রতি) দিয়া সাগর পার হয়েই কুতুবদিয়া।
কোথায় থাকবেন…??
কুতুবদিয়া থাকার মত একমাত্র হোটেল “হোটেল সমুদ্র বিলাস”।যতদুর জানি একরুম ভাড়া ১০০০ টাকা একরাতের জন্য।
এইবার আসি খাবারে…..!!!!
খাবারের চিন্তা ছাড়াই আপনি আসতে পারবেন কুতুবদিয়া।”নিউ মদিনা” “ক্যাপে আলম” সহ বেশ কয়েকটা ভাল মানে হোটেলে আপনি খেতে পারবেন ঝামেলা ছাড়াই।
টুকিটাকি………
প্রথমে বলি এখনে এক জায়গায় থেকে অন্য জায়গায় যাওয়ার জন্য কোন গাড়ি রিজার্ভ না করাই ভাল।কারণ জায়গা গুলো বেশি দুরে নয়।যেমন বডঘোপ বাজার থেকে বায়ুবিদ্যুৎ যাবেন ভাড়া জনপ্রতি ১০ টাকা স্থানীয় টেম্পো করে আর রিজার্ভ নিলে ২০০-৩০০ টাকা চায়বে।আর আপনি চায়লে বিচ দিয়ে হেঁটে হেঁটে যেতে পারবেন,সর্বোচ্চ ৩০ মিনিট লাগবে।আর হা রাতে বিচে চাঁদের আলোতে সময় কাটাতে পারবেন।জায়গা পুরাপুরি নিরাপদ।

Post Copied From:Towhid Bkc>Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com