চন্দ্রনাথ পাহাড়!!

এখন পর্যন্ত যারা এখানে যান নি , আপনার জীবনের সমস্ত এ্যাডভেঞ্চার এর সাথে যুক্ত করতে পারেন নতুন একটি নাম – চন্দ্রনাথ পাহাড় ৷
মূলত এটি হিন্দু ধর্মালম্বীদের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত ৷ তাই আপনি যখন এই পাহাড়ে যাবেন , তখন ছোট-বড় শখানেক বা তার কিছু কম সংখ্যক মন্দির দেখতে পাবেন । হাজার বছড়ের ঐতিহ্যবাহী শ্রী চন্দ্রনাথ মন্দির এর উপর এই পাহাড়ের নামকরণ করা হয়-চন্দ্রনাথ পাহাড় । সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১০৫০-১১০০ ফিট উচ্চতায় এই মন্দির এর অবস্থান ৷ তবে ভয়ের তেমন একটা কারন নেই , কেননা এই পাহাড়ের চূড়ায় যাওয়ার জন্য একদম পাদদেশ থেকে চূড়া পর্যন্ত কনক্রিট এর সিড়ি করে দেয়া আছে ৷ তবে সিঁড়ি গুলো অত্যন্ত খাড়া ৷ হাঁটুর জোড় না থাকলে বিশ্রাম নিয়ে যাওয়াই শ্রেয় ৷ আর উপরে উঠতে উঠতে পাহাড় আর প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করুন I কুয়াশা/মেঘে ভড়া আকাশ , সবুজের সমারহ , ছোট ছোট অনেক বাচ্চা পাহাড় সত্যি আসাধারন ৷ আর একটা মজার ব্যাপার হচ্ছে , পাহাড় গুলো পাথুরে আর ঝড়ঝড়ে রুক্ষ । এমন খাড়া পাথুরে প্রায় ১৭৫/১৮০ ডিগ্রী পাহাড় আমাদের দেশে দেখা যায় না ৷
যাদের হাতে পর্যাপ্ত সময় নেই তারা খুবই অল্প সময়ে ঘুড়ে আসতে পারেন ৷ সাথে কাছাকাছি গুলিয়াখালি , বাশবাড়িয়া এবং কুমিড়াঘাট সী-বিচ গুলো ঘুড়ে আসতে পারেন একই দিনে ৷
যেভাবে যাবেন :
ঢাকা থেকে রাত ১১ টায় কমলাপুর ষ্টেশন এ ঢাকা মেইল এ ১২০ টাকা টিকেট কেটে উঠে পড়ুন সীতাকুণ্ড এর উদ্যেশ্য ৷ সকাল ৭:৩০ এ আপনি পৌঁছে যাবেন সীতাকুণ্ড স্টেশন এ । সীতাকুন্ড নেমে নাস্তা সেড়ে ফেলুন । ষ্টেশন থেকে একটু সামনে চলে যান রেললাইন ধরে ৷ অটো বা সি এন জি তে চলে যান চন্দ্রনাথ , ভাড়া ১৫-২০ টাকা ৷ তারপর দুপুরের মধ্যে ঘুড়া শেষ করে সীতাকুন্ড ফিড়ে ভোজ সেড়ে ফেলুন ৷ একটু হেঁটে মেইন রোড চলে যান ৷ গুলিয়াখালি যেতে চাইলে রোড এ উঠতে হবে না ৷ ব্রীজ এর নিচে সি এন জি আছে ৷ জনপ্রতি ২০-৩০ টাকা ৷ অনেক সুন্দর যায়গা ৷ আর বাশবাড়িয়া বা কুমিড়া যেতে হলে বাস এ উঠে পড়ুন ৷ ভাড়া ১৫-২৫ ৷ কুমিড়া ২৫ টাকা , নামবেন বড় কুমিড়া ৷সেখান থেকে অটো বা সি এন জি ১০ টাকা ৷
আর বাশবাড়িয়া বাস এ ১৫ টাকা , ওইখান থেকে বীচ ২০ টাকা ৷

ফেরার পালা । সীতাকুন্ড চলে আসুন , রাত ৮ টার মধ্যে । ৮.৩০ এ জালালাবাদ মেইল এ ফেনী চলে আসুন ৷ টিকেট ২০-২৫ টাকা ৷ টিকেট না কাটলেও সমস্যা নেই ৷ রাত ১২ টায় ঢাকা মেইল এ ঢাকা ফেরত চলে আসুন ৷
উল্লেখ্য : ঢাকা মেইল যাওয়ার সময় সীতাকুন্ড থামে , আসার সময় না ৷ আন্তঃ নগর পরিহার করা অধিক সুবিধাজনক । কেননা , যাওয়ার সময় আপনার হয় নামতে হবে ফেনী না হয় চট্টগ্রাম ৷ ফেনী নামাবে রাত ১:৩০ এ ৷ আর সকাল ৭টার আগে সীতাকুন্ড এর ডেমু ট্রেইন ছাড়া আর নাই ৷ সারারাত ফ্রি ওয়াইফাই চালানো ছাড়া ঘুমাতেও পাড়বেন না ৷ একই অবস্থা ঢাকা ফেরার ক্ষেত্রেও ৷ সিদ্ধান্ত আপনার ৷

এই শিডিওল যাদের জন্য : বৃহস্পতিবার রাত রওনা দিবেন , শুক্রবার সারাদিন ঘুড়বেন , রাত এ রওনা দিয়ে সকালে অফিস/ক্লাস করবেন ৷ যাদের হাতে এর থেকে বেশি সময় নেই তাদের জন্য শিডিওল ৷

খরচ : মেইল ট্রেইন এ আসা যাওয়া , অটো ভাড়া , খাওয়া সব কিছু মিলিয়ে ৭০০-৮০০ টাকা ৷
আর বাস বা ডিরেক্ট ট্রেন এর জন্য ১১oo – ১৪০০ টাকা এর মধ্যে ।

আর কিছু জানতে চাইলে কমেন্ট এ জানান , আমি অধম ভ্রমণ বিষয়ে তথ্য দেয়ার চেষ্টা করব ( যত টুকু জানি )

Post Copied From:Tanvir Ahmed‎>Travelers of Bangladesh (ToB)

Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com