ছেড়া দ্বীপ

৯ কি.মি এলাকা জুড়ে বিস্তৃত সেন্টমার্টিন দ্বীপ! তার থেকে মাত্র ৩ কি.মি দূরে ছেড়া দ্বীপের অবস্থান!ছেড়া দ্বীপের সৌন্দর্যের কাছে সেন্টমার্টিনের সৌন্দর্য হার মানবে! প্রবাল,গাছপালা,আর সমুদ্রের ঢেউ ছেড়া দ্বীপের সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে তুলেছে!ডাব খেতে খেতে খেতে পুরো দ্বীপটা রাউন্ড মেরে দিন! ভিডিওটা যে জায়গাতে করা ওই জায়গাটা এরিয়ে চলুন,এই জায়গাটা সব থেকে রিস্কি! খালি পায়ে ছেড়াদ্বীপে যাওয়ার মত বোকামি করবেন না! প্রবাল গুলা এতটাই দাড়ালো যে বড় ধরনের দুর্ঘটানা ঘটে যেতে পারে! ছেড়াদ্বীপে কয়েকটি উপায়ে যাওয়া যায়! স্পিডবোট,ট্রলার,সাইকেল আর পায়ে হেটে! তবে সবচেয়ে মজা পাওয়া যাবে সাইকেল চালিয়ে গেলে,পুরো গ্রামটা ঘুরে দেখে যেতে পারেবন! সাইকেলের ভাড়া ঘন্টা হিসেবে নেয়,ট্রলার ভাড়া ১৫০,আর স্পিডবোট ১৭০০ টাকা রিজার্ভ!ট্রলার আর স্পীডবোটে করে গেলে এক ঘন্টার বেশি থাকতে পারবেন না!

এবার সেন্ট মার্টিন সম্পর্কে কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করি! প্রথমে সবার একটা কিনফিউশন দূর করে দেই! অনেকই মনে করতেছে রহিংা জনিত ইস্যুর কারণে শীপ চলাচল বন্ধ রয়েছে! কিন্তু না, এখন সব ধরনের সমস্যা সমাধান হয়ে গেছে! যথাসময়ে কেয়ারি সিন্দাবাদ,কুতুবদিয়া চলাচল করে! কম খরচে থাকতে,খেতে হলে সেন্ট মার্টিনে গিয়ে আপনাকে দুনিয়ার সেরা ছেছড়া হতে হবে! তানাহলে আপনাকে কুপাই দিবে! ৫০০ টাকার হোটেল চাইবে ২০০০ টাকা! ১০০ টাকার মাছ চাইবে ৩০০ টাকা! সু সব কিছু দরদাম করে নিবেন! সেন্ট মার্টিন খুবই নিরাপদ একটি জায়গা,সারা রাত আপনি বীচে সময় কাটাতে পারবেন! তবে গত ২৭ নভেম্বর একটি দুর্ঘটনা ঘটে গেছে! আমাদের সামনের হোটেলের সেকেন্ড ফ্লোর থেকে একটি মোবাইল চুরি হয়ে গেছে! এমন ঘটনা আগে কখনও ঘটে নাই,যার জন্য হোটেল কতৃপক্ষ দুক্ষ প্রকাশ করেছে! যাইই হউক সবাই সবার মালামাল নিজ দায়িত্তে রাখুন! তবে সেন্ট মার্টিনের মানুষগুলা খুবই ভাল!
এবার আমি খরচ সম্পর্কে কিছু আইডিয়া দিচ্ছি! আমার খরচটাই তুলে ধরলাম এতে আপনারা বাকিটা বুঝে নিয়েন! চট্রগ্রাম থেকে বাসে করে কক্সবাজার ২৫০ টাকা ভাড়া! সেখান থেকে সিএনজি করে শাপলাপুর ১৫০ টাকা জনপ্রতি! শাপলাপুর থেকে ১০০ টাকা করে টেকনাফ!মেরিন ড্রাইভ উপভোগ করার জন্য রাস্তা ভেংগে ভেংগে গেছি! বাসে গেলে আপনি মেরিন ড্রাইভ উপভোগ করতে পারবেন না! ১ ঘন্টা+৩০ মিনিট টোটাল ১.৩০ ঘন্টা সময় লাগবে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে টেকনাফ যেতে! টেকনাফ থেকে লোকাল সিএনজি ২০ টাকা কেয়ারি শীপ ঘাট! সেখান থেকে ৫৫০ টাকা শীপ ভাড়া যাওয়া আসা! তারপর সেন্ট মার্টিনে পৌছে হোটেল সী-স্যান্ডে রুম বুক করছিলাম ৫০০ টাকা দিয়ে!১০০০ টাকা চাইছিল,তরকারি কিনার মত দামদর করে ৫০০ টাকা দিয়ে রুম নিয়েছিলাম! এখন অফ সিজন তাই পর্যটক কম! তাই আপনার থেকে যত নিতে পারে ততই লাভ! হোটেলেটা বেশ ভালল ছিল,সামনে খোলামেলা জায়গা ছিল! আর হ্যা একটা দোলনা ও ছিল! আর খাবারের খরচ হয়েছিল প্রতিবেলা ১৬০ টাকা করে! কোরাল মাছ ১০০,ভাত ৩০ টাকা(যত ইচ্ছে খেতে পারবেন),সবজি ৩০ টাকা! ছেড়াদ্বীপে গিয়েছিলাম স্পীডবোট শেয়ার করে, তাই খরচটা একটু বেশিশি হয়েছিল! আমার ৪ বেলা খাওয়া সহ চট্রগ্রাম পৌছা পর্যন্ত খরচ হয়েছিল ৩৮০০ টাকার মত! আমি রুমে একা থেকেছিলাম,শেয়ারে থাকলে হয়ত একটু খরচ কম হত! তবে ১০ তারিখের পর গেলে হোটেল ভাড়া ৩ ডাবল হয়ে যাবে!
সেন্ট মার্টিনে কারেন্টের ব্যবস্থা নাই,তাই পারলে সবাইবাই পাওয়ার ব্যাংক সাথে নিয়ে যাবেন! ওখানে রবি,বাংলালিংক,এয়ারটেল,গ্রামীনফোনের নেটওয়ার্ক সার্ভিস ভাল!😊
দারুচিনি বীচের যে পাশে লাল পতাকা দেওয়া আছে ওইপাশে নামবেন না! কয়েকট গভীর গর্ত আছে,এখানে কয়েকজন মারাও গেছে! আমি কোথাও ঘুরতে গেলে সেখানকার সম্পর্কে ভাল করে জেনে আসি যাতে করে অন্যদেরকে হেল্প করতে পারি!😊
টাকা বেশি থাকলে মাষ্ট বি ট্রাই করিয়েন স্কুবা করার জন্য!😍
কেউ ঘুরতে গিয়ে দয়াকরে পরিবেশ নষ্ট করবেন না!ময়লা,আবর্জনা যথাযথ স্থানে ফেলুন!
মোবাইলে টাচে একটু প্রবলেম তাই লিখতে কষ্ট হচ্ছিল! লেখায় ভূল হয়ে থাকলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন!
কোন কিছু জানার থাকলে ইনবক্স করিয়েন!
যেভাবে যাবেনঃ ঢাকা থেকে টেকনাফ গামী যেকোন বাসে করে টেকনাফ, টেকনাফ ঘাট থেকে ট্রলার অথবা শীপে করে সেইন্ট মার্টিন্স দ্বীপ। সেইন্ট মার্টিন্স থেকে ট্রলার, সাইকেল বা পা পায়ে হেটে ছেড়া দ্বীপ। থাকার জন্য অফ সিজনেও ২-৩ টি রিসোর্ট খোলা থাকে, আর সিজনে সব হোটেল আর রিসোর্ট খোলা পাবেন।

Post Copied From:

Rony Bhuiyan > Travelers of Bangladesh (ToB)
Share:

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com