সিলেট থেকে কক্সবাজার

প্রথমেই বলে রাখি আপনি যদি ব্যাচেলর হোন অথবা কম টাকায় কক্সবাজার ঘুরে আসতে চান তবে এই পোস্টটি আপনার জন্য। যদিও শিরোনাম সিলেট টু কক্সবাজার কিন্তু এটা সবার জন্য হেল্পফুল হবে বলে আশা করছি। আমার সীমিত অভিঞ্জতা নিয়ে এই পোষ্ট তাই যদি কোন ভুল হয় তবে ক্ষমাপ্রার্থী।
যাত্রা শুরু:

  • প্রথমে আপনার বাসা থেকে রেলওয়ে স্টেশন
  • সিলেট থেকে চট্রগ্রাম – ট্রেন সময় লাগে ৮ ঘন্টা ভাড়া শোভন চেয়ার ৩৬৫ টাকা।
  • স্টেশন বা রিয়াজ উদ্দিন বাজার থেকে নতুন ব্রিজ – সিএনজি সময় লাগে ১৫ মিনিট ভাড়া ১০ টাকা জনপ্রতি।
  • নতুন ব্রিজের ওখান থেকে কক্সবাজার – বাসে সময় লাগে ৪ ঘন্টা ভাড়া ২৫০ (সাজেশন- সৌদিয়া বাস)

চট্রগ্রামে হোটেল:
হোটেল গোল্ডেন ড্রিম- রিয়াজ উদ্দিন বাজার, স্টেশনের উল্টো গলি, চট্রগ্রাম। -মোবাইল: 0312866861, 01743400228। আপনি যদি ব্যাচেলর হোন তবে এটি চয়েস করতে পারেন সীমিত সময়ের জন্য।
কক্সবাজার হোটেল:

  • গ্যালাক্সি রিসোর্ট লিমিটেড। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 03415115, 01711381912, 01611381912
  • ফসসাল গেষ্ট হাউস। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 01868741155, 01840299390
  • রমজান কটেজ। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 01815152618, 01842141523
  • আল জিয়া গেস্ট হাউস। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 01860253921, 01816493474
  • আল মাহমুদ গেষ্ট হাউস। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 01813291701, 01787113034
  • জি. এম. গেষ্ট হাউস। কলাতলী রোড, কক্সবাজার। মোবাইল: 01866494845, 01731323062
  • সী শার্ক রিসোর্ট। কলাতলী রোড, কক্সবাজার।

মোবাইল: কক্সবাজার থেকে পার্সেলে শুটকী আনতে হলে – বড় বাজার শুটকী আডৎ- বার্মিজ মার্কেট, প্রধান সড়ক, কক্সবাজার। অভি: ০১৮১১৯৭৫৯০১ (বিকাশ নাম্বার)
ট্রেন ইনফোরমেশন

  • সিলেট থেকে- পাহাড়িকা সিলেট থেকে ছাড়ে সকাল ১০.১৫ মিনিটে চট্রগ্রাম পৌছে রাত ৮.০০ মিনিটে। শনিবার বন্ধ থাকে। উদয়ন সিলেট থেকে ছাড়ে রাত ১১.২০ মিনিটে চট্রগ্রাম পৌছে সকাল ৬.১০ মিনিটে। রবিবার বন্ধ থাকে।
  • চট্রগ্রাম থেকে- পাহাড়িকা চট্রগ্রাম থেকে ছাড়ে সকাল ৮.১৫ মিনিটে সিলেট পৌছে সন্ধা ৫.৩০ মিনিটে। সোমবার বন্ধ থাকে। উদয়ন চট্রগ্রাম থেকে ছাড়ে রাত ৯.৩০ মিনিটে সিলেট পৌছে সকাল ৬.৩০ মিনিটে। রবিবার বন্ধ থাকে।

কিছু টিপস:

  • একা না গিয়ে চেষ্টা করবেন অন্তত ২জন যেতে। বেশি হলে আরো ভাল হয়।
  • সিলেট থেকে চেষ্টা করবেন রাতের ট্রেনে যেতে এবং সকালে গিয়ে সরাসরি চলে যান কক্সবাজার।
  • কলাতলীতে হোটেল নিবেন।
  • হোটেলের ভাড়া যা বলবে তার অর্ধেক বলবেন। পারলে আরো কম।
  • খাবার হিসাবে ফাস্টফুড বা মাংস ছেড়ে শুধু মাছ খাবেন।
  • কলাতলী থেকে হেটে হেটে বীচে যাবেন। রিক্সায় গেলে ২০ টাকা দাবী করবে যদিও ৫টাকার ভাড়া।
  • বীচে যাবার সময় সানগ্লাস, অতিরিক্ত একসেট পোষাক (শার্ট বা টি-শার্ট এবং পেন্ট), গামছা এবং লুঙ্গি নিবেন।
  • ভাটার সময় পানিতে নামবেননা।
  • জোয়ারের সময় পানিতে নামুন এবং অবশ্যই বেশি পানিতে যাবেননা।
  • স্থানীয় ক্যামেরাম্যান দিয়ে ছবি তোলালে ছবি প্রতি ৩টাকার বেশি দিবেননা। এবং নিজের মেমোরী কার্ডে ছবি নিবেন।
  • ক্যামেরাম্যান এর সাথে আগে থেকে চুক্তি করবেন যে, খারাপ ছবি নিবেননা।
  • ঘোড়া, তিন চাকার বাহন থেকে সাবধান। এইগুলি না ছড়াই উত্তম।রাতে ১২টার দিকে সমুদ্রের গর্জন শুনবেন।
  • বার্মিজ মাকের্টে গেলে বার্মিজ মেয়েদের কথা শুনে মুগ্ধ হবেননা। এরা যত টাকা বলবে তার ৪ ভাগের একভাগ বলবেন।
  • যাওয়ার সময়ই আসার টিকেট করে নিবেন।
  • কক্সবাজার থেকে না কিনে চেষ্টা করবেন চট্রগ্রাম থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে। ‍

বাজেট:

  • হোটেল: সর্বনিন্ম ২০০ টাকা প্রতিদিন (সিঙ্গেল বেড)
  • সিঙ্গেল বেড পাওয়া কষ্টকর। ওরা ডাবল বেড দিবে এবং ৪০০ টাকা রাখবে।
  • খাবার: নাস্তা ৬০ টাকা, প্রতিবেলার খাবার: ২০০ টাকা জনপ্রতি।

তো সবকিছু তো জেনে গেলেন। এবার আপনার যাওয়ার পালা। এতগুলো টিপস্ এর বিনিময়ে আসার সময় অবশ্যই বার্মিজ আচার নিয়ে আসবেন আমার জন্য। 🙂 ভাল থাকুন এবং নিরাপদে থাকুন।

Share:

2 Comments

  • Shanto mainas

    —এই পোষ্টের মালিক ভালো থেকে বাঁচুক; 🙂
    -কবু দেখা হলে আচার খাওয়ামু; -প্রমিজ!

    Reply
    • Abdullah Al Amran

      অপেক্ষায় রইলাম আচার খাওয়ার 😉

      Reply

Leave a Comment

Shares
error: Content is protected !! --vromonkari.com