হরিণমারা ট্রেইল কমলদহ ভ্রমণ

বহুদিন আগের কথা,যখন সীতাকুণ্ডের এই পাহাড়ী এলাকা গুলোতে পশুপাখীদের আনগোনা বেশি ছিলো।হরিণ, বুনো শুয়োর, শিয়াল, গুইশাপ এমনকি বড় বাঘ ও দেখা যেতো মাঝে মাঝে এই এলাকায়। এখন মানুষ এর আনগোনা বেশি। বন্য জন্তু দেখা যায়না বললেই চলে।
ফাদ পেতে ঝর্নার পানি খেতে আসা হরিণ শিকার করা হতো বলে এই ঝর্নার নাম হয়ে যায় হরিণ মারা ঝর্না। কতকাল আগে নাম দেয়া হয়েছে কে জানে!
পাশেই আরো দুটো ঝর্ণা রয়েছে। হাটুভাংগা আর সর্পপ্রপাত। আর ওই যে সর্পপ্রপাত ওইটা বাকি দুইটার চেয়ে একটু ছোট। কিন্তু ছোট হলেও তেজের কমতি নেই তার।
সর্পপ্রপাতের উপরে আর ও দুটি ঝর্না রয়েছে নাকি, বৃষ্টির জন্য উঠিনি। পরের বার যদি ভাগ্যে থাকে যাবো। যাবো তো আবার অবশ্যই। আমার দেখা সবচেয়ে সহজ কিন্তু সবচেয়ে সুন্দর ট্রেইল এটি।

.
ঢাকা থেকে গেলে ছোট কমলদহ বাজারে নেমে বামে সোজা হাটা ধরুন। লেক পাবেন একটা। লেকের বামে একটা রাস্তা গিয়েছে, ওইটা দিয়েও যাওয়া যাবে আবার বোটে করেও।
আমি বলবো বোটে যান, যাওয়া আসা ৫০ টাকা নিবে। পাহাড়ি রাস্তাটার চেয়ে অনেক বেশি সুন্দর ভিউ পাবেন। ৫০ টাকা বাচাতে সুন্দর ভিউ পাওয়া মিস করা গাধামি হবে। বোটে লেক পার হওয়াটা অন্যরকম অনুভুতি।
বোট থেকে নেমেই ট্রেইল শুরু,সহজই একবারে।
একে একে পড়বে হাটুভাংগা,সর্পপ্রপাত আর হরিণমারা।
হাটুভাংগা টা অনেক বড়। হরিণমারা ঝর্নার একবারে নিচে যাওয়া হয়নি, গভীর আছে,সাঁতার পারিনা।
আমরা শুরু করি যখন তখন কেউ ছিলোনা, সকাল ৬ টায়।বৃষ্টি হচ্ছিলো। চেষ্টা করবেন এই সময়ে যাওয়ার। যত দেরি করবেন মানূষ আসতে থাকবে তত। আমরা যখন ব্যাক করছিলাম ১১ টায় তখন অনেক মানুষ আসছিলো।

প্রথমবার হলে লোকাল কাউকে নিতে পারেন গাইড হিসেবে,খুব বেশি নিবেনা। ২০০ দিলেই হবে। যতই সহজ ট্রেইল হোক, বিপদ আসতে কতক্ষন!
নিরাপত্তা সবার আগে তারপর বাজেট ট্রাভেলিং। অনেক কিছুতেই সাহায্য পাবেন তাদের কাছে আর লোকাল কাহিনী তো আছেই।
খরচ এটা সহ বাশবাড়িয়া বীচ ঘুরে আরামে খেয়ে দেয়ে ১২০০ এর মত হয়েছিলো । যাওয়ার সময় ফেনিতে নেমেছিলাম স্টারলাইন বাসে যেয়ে। ভাড়া এসি ৩৮০ টাকা। সেখান থেকে লোকাল বাসে কমলদহ ৫০ টাকা। চট্টগ্রাম এর বাসে উঠবেন। ব্যাক ও করবেন সেইম পথে।

.
.
(অনেক ভোরে গেলে মাঝি পাবেন না। আমরা যেয়ে অনেক্ষন দাঁড়িয়ে ছিলাম।জোরে চিল্লিয়ে ডেকেও কারো সাড়াশব্দ পাইনি। লোকালয় দূরে ভালোই।
অনেক্ষন পরে মাঝি আসে। তাই তার নাম্বার তা রাখা ভালো হবে – গিয়াস মাঝি ০১৮১৫-৯২৩৮৯৬ )
.

.
ট্রেইলটিতে যেয়ে কোথাও পলিথিন,বোতল, প্যাকেট পাইনি। এতো ভালো লেগেছে। অনেক পরিস্কার আর সুন্দর একটা ট্রেইল। এটাকে সুন্দর রাখা আমাদেরই দায়িত্ব। যেয়ে যেখানে সেখানে ময়লা না ফেলি। এখানে কেনো শুধু, সবস্থানই পরিস্কার রাখি। নিজে সচেতন হই,অন্যকেই হতে সাহায্য করি।
Source:  Nayeem Nissan

Share:

Leave a Comment

Shares